সমার্থক শব্দ/প্রতিশব্দ

সমার্থক শব্দ

যে সব শব্দ একই অর্থ প্রকাশ করে তাদের সমার্থক বা একার্থক শব্দ বলে। রচনার মাধূর্য সৃষ্টির জন্য একটা অর্থকেই বিভিন্ন বাক্যে বিভিন্ন শদ্ব দ্বারা প্রকাশ করার প্রয়োজন। কবিতায় এর প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি হতে পারে।

কোনো শব্দ কখনো একটি অর্থ, কখনো একাধিক অর্থ প্রকাশ করে। ‘সমার্থক’ শব্দের অর্থ ‘একই অর্থবোধক’ অর্থাৎ এক বা অনুরূপ অর্থবিশিষ্ট। একে প্রতিশব্দও বলা হয়। সুতরাং সমান অর্থজ্ঞাপক ভিন্ন শব্দকে সমার্থক বা প্রতিশব্দ বলে।

এ সম্পর্কে অশোক মুখোপাধ্যায় বলেছেনঃ ‘যেমন শব্দ একই অর্থ প্রকাশ করে বা যেসব শব্দকে একই অর্থে ব্যবহার করা চলে, তাদের বলা হয় প্রতিশব্দ বা সমার্থকশব্দ বা সমার্থ শব্দ।’ সমার্থক বা প্রতিশব্দের প্রয়োজনীয়তাঃ  বাংলা ভাষার এমন অনেক শব্দ আছে যা অন্য ধরনের ব্যবহারের মাধ্যমে ভাবের বিচিত্র প্রকাশ ঘটানো যায় এবং বক্তব্যের প্রকাশ উপযোগিতাভেদে প্রতিশব্দ থেকে উপযুক্ত শব্দটি বেছে নিয়ে ভাবের যথাযথ রূপটি ফুটিয়ে তোলা যায়। ছড়া বা সমিল কবিতার জন্য প্রতিশব্দের প্রয়োজন খুব বেশি। ‘প্রতিশব্দ’ রচনাকে পুনরাবৃত্তি দোষ থেকে মুক্ত করে তাকে শ্রুতিমধুর করে তোলে। এতে রচনার যেমন শ্রীবৃদ্ধি ঘটে তেমনি ভাষাও সরস - সুন্দর হয়ে ওঠে। সর্বোপরি সমার্থক বা প্রতিশব্দ ভাষা ও ভাষার শব্দভান্ডারকে সমৃদ্ধ করে। সুতরাং এ সব দিক বিবেচনায় সমার্থক বা প্রতিশব্দের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করা যায়ঃ

প্রভাতে উঠিল রবি লোহিত বরণ। ভোরের বেলা শিউলি তলে ফুলের ছড়াছড়ি। প্রত্যুষে কে দিল হানা দুয়ারে ?

উপরের বাক্যসমূহে ব্যবহৃত ‘প্রভাত’ , ‘ভোর’ , ‘প্রত্যুষ’ প্রভৃতি শব্দগুলোর অর্থ একই এবং একটি অন্যটির সমার্থক বা প্রতিশব্দ।

নিচে প্রয়োজনীয় কিছু শব্দের সমার্থক বা প্রতিশব্দ প্রদত্ত হলোঃ 

অগ্নি আগুন, অনল, বহ্নি, পাবক, হুতাশন, দহন, সর্বভুক, কৃশানু, সর্বশুচি, শিখাবৎ, বায়ুসখা।
অতিথি আগন্থ‘ক, অভ্যাগত, গৃহাগত, মেহমান, কুটুম্ব, আমন্ত্রিত, নিমন্ত্রিত।
অক্ষি আঁখি, নয়ন, চোখ, নেত্র, দৃষ্টি, নজর, লোচন।
অঙ্গ গা, তনু, দেহ, শরীর, গাত্র।
অভিলাষ অভিপ্রায়, অভিরুচি, আকাক্সক্ষা, ইচ্ছা, কমনা, বাসনা, সাধ, স্পৃহা, বাঞ্ছা।
অশ্রু চোখের জল, লোর, নেত্রজল, আঁখি, নীর।
অরুণ সূর্য, ভাস্কর, প্রভাকর, দিবাকর, দিনমণি, আদিত্য, ভানু, রবি, তপন, অর্ক, সবিতা, বিভাবসু।
অশ্ব ঘোড়া, ঘোটক, তুরঙ্গ, তুরঙ্গম, তুরগ, বাজী।
অন্ন ভাত, তন্ডুল, ওদন।
অন্ধকার আঁধার, তিমির, তমঃ
অভিজ্ঞ বহুদর্শী, বিশেষজ্ঞ, জ্ঞানী।
আকাশ অম্বর, অন্থরীক্ষ, অভ্র, আসমান , গগন , নভঃ, নভোমন্ডল
আনন্দ হর্ষ, তৃপ্তি, আহ্লাদ, আমোদ, সুখ, স্ফূর্তি, উল্লাস, খুশি, পরিতোষ, প্রফুল্লিত, প্রীতি, সন্থোষ।
আশা অভিলাষ, অভিপ্রায়, অভিরুচি, আকাঙ্কা, ইচ্ছা, কামনা, বাঞ্ছা, ভরসা, সাধ, স্পৃহা।
আলোক দীপ্তি,প্রভা,জ্যোতি, কিরণ।
আহ্লাদ হর্ষ, আনন্দ, আমোদ, মজা, মোহ
ইচ্ছা সাধ, বাসনা, কামনা, স্পৃহা, বাঞ্ছা, অভিলাষ, অভিরুচি, আভিপ্রায়, মনোরথ, ঈপ্সা, আকাঙ্খা
ইতি শেষ,সমাপ্ত,অবসান, যবনিকা, পরিশেষে।
ঈশ্বর ভগবান, জগৎ¯্রষ্টা, জগৎপিতা, জগদীশ, প্রভু, স্বামী, প্রাণেশ্বর, অধিপতি, বিধাতা, বিভু, বিশ্বপতি, পরমেশ্বর, সর্বশক্তিমান, সর্বজ্ঞ, অন্থর্যামী, সৃষ্টিকর্তা, আল্লাহ, খোদা।
উজ্জ্বল আলোকিত, দীপ্তিমান, উদ্ভাসিত, ঝলমলে, শোভমান, জ্বলন্থ, প্রজ্বলিত।
উৎপল পদ্ম,কুদুম,পঙ্কজ, শতদল, নলিন, কুবলয়, কোকনদ, সরোজ, কমল, অরবিন্দ।
উদয় আবির্ভাব,উত্থান, উৎপত্তি, উদ্রেক, সঞ্চার, উৎকর্ষ, উন্নতি।
উদর পেট,জঠর,গর্ভ, অভ্যন্থর।
উপকার মঙ্গলসাধন, কল্যাণ সাহায্য, অনুগ্রহ।
উপমা সাদৃশ্য, তুলনা, মিল।
উপল প্রস্তর, শিলা, রত্ন
ঊষা প্রভাত,প্রত্যূষ,ভোর, সকাল।
উর্মি তরঙ্গ,ঢেউ, বীচ, হল্লোল।
ঋণ দেনা, কর্জ, ধার, হাওলাত।
এবং আর, ও, এমন।
ইচ্ছা  বাসনা, গবেষণা,এষণা
ঐতিহ্য কিংবদন্থী, বিশ্রুতি, প্রথা।
ঐশ্বর্য ধনসম্পত্তি, বিভব, প্রভুত্ব, বিভূতি।
ঐক্য একতা, মিল, একত্ব, অভিন্নতা।
ঔষধ ওষুধ,দাওয়াই,প্রতিষেধক।
কপাল ললাট,ভাল,অদৃষ্ট, করোটি।
কর্ণ কান,শ্রবণ,শ্রুতি, শ্রবণেন্দ্রিয়।
গাল গন্ড, কপোল
কলা কদলী, রম্ভা।
কল্যাণ হিত, মঙ্গল, কুশল।
কন্যা মেয়ে, আত্মজা, দুলালী, নন্দিনী, তনয়া।
কল্লোল তরঙ্গ, মহতরঙ্গ, মহানন্দ।
কাক বায়স, সুদর্শন, পরভৃৎ।
কিরণ আলো, অংশু, আভা, কর, জ্যোতি, প্রভা, রশ্মি, দীপ্তি, বিভা, ময়ূখ।
কুল বংশ, গোত্র, গোষ্ঠী, জাতি, বর্ণ, গণ, সমূহ, পাল, যূথ, সমাজ, আবাস।
কুকুর সারমেয়, কুত্তা, কুক্কুর।
কেশ চুল, অলক, কুন্থর, চিকুর।
কোকিল অন্যপুষ্ট,কলকন্ঠ, কাকপুস্ট, পিক, পরভৃত, বসন্থদূত।
কালো অসিত, কৃষ্ণবর্ণ, শ্যাম, শ্যামল।
কুল তট, কিনারা, তীর, আশ্রয়, অবধি।
ক্রোধ রাগ, রোষ, কোপ, বিরাগ, উষ্মা, রোষ, অসন্থোষ।
খবর সংবাদ, বার্তা, তত্ত্ব, সন্দেশ, সন্ধান।
গরু গাভী, গো, ধেনু, ধবলী।
   
গাড়ি শকট, যান রথ।
গাছ বৃক্ষ, তরু, লতা, গুল্ম, তৃণ।
গৃহ আলয়, আগার, আবাস, ঘর, বাটি, বাড়ি, নিকেতন, সদন, ভবন, ধাম, পুরী, কক্ষ, বাসস্থান, নিলয়।
গৌরব গুরুত্ব, গরিমা, মহিমা, মর্যাদা, আদব, সম্মান, গর্ব।
গৃহিণী কর্ত্রী, গরনী, পত্নী, জায়া, স্ত্রী, গৃহলক্ষী।
গগন আকাশ, নভৎ. অম্বর, আসমান, অভ্র, অন্থরীক্ষ, ব্যোম, নভোমন্ডল।
চক্ষু চোখ, অক্ষি, আঁখি, নয়ন, লোচল, দৃষ্টি, নজর, নেত্র।
চঞ্চল অস্থির, চপল, ব্যাকুল, দুরন্থ, কম্পিত, বিচলিত, অধীর, আকুল।
চন্দ্র চাঁদ, চন্দ্রিমা, চন্দ্রমা, ইন্দু, নিশাকর, নিশাপতি, নিশানাথ, হিমকর, শশী, শশধর, শশাঙ্ক, সাধুকর, সুধানিধি, সোম, হিমাংশু, বিধু, তারাপতি, মৃগাঙ্ক, রজনীকান্থ
চিত্র ছবি, আলেখ্য, নকশা, প্রতিকৃতি, তিলক।
চরিত্র স্বভাব, আচরণ, রীতিনীতি, সদাচার, সৎপ্রকৃতি।
চালাক চতুর, বুদ্ধিমান, ধূর্ত, কূটবুদ্ধিসম্পন্ন।
ছাত্র শিক্ষার্থী, শিক্ষানবিস, বিদ্যার্থী।
ছুটি অবসর, অবকাশ, ফুরসত।
ছেলে পুত্র, নন্দন, তনয়, দুলাল, বেটা, ছাওয়াল, ছোকরা।
জল পানি, নীর, অপ, উদক, পানীয়, বৃষ্টি, বারি, সলিল, তোয়, জীবন, অম্বু, পয়ঃ।
জ্যোৎস্না চন্দ্রলোক, কেওট্টমুদী, চন্দ্রিকা, জোছনা।
ঝরনা নির্ঝর, ফোয়ারা, প্রবাহ।
ডাঙ্গা স্থল, উচ্চভূমি, তীর।
ঢেউ তরঙ্গ, ঊর্মি, বীচ, কল্লোল, উল্লোল. হিল্লোল, লহর, লহরী, জলহিল্লোল, তরঙ্গমালা, তরঙ্গভঙ্গ, ঊর্মিলহরী, ঘূর্ণি, কোটল, জোয়ার, দোলা।
তটিনী নদী, প্রবাহিনী, তরঙ্গিণী, স্রোতস্বিনী
তরু গাছ, বৃক্ষ।
ঢেউ, ঊর্মি, বীচি, লহরী। তরঙ্গ
তট তীর, পাড়, কিনার, কূলম বেলাভূমি।
তরুণ নবযেীবনপ্রাপ্ত, নতুন, কিশোর, নবোদিত, অপরিণত, বালক।
দরিদ্র অভাবগ্রস্ত, গরিব, দীন, কাতর, হীন, নিঃস্ব, দুঃস্থ।
দর্পণ আয়না, আরশি, মুকুর।
দিন দিবস, দিবা, অহ।
দীপ প্রদীপ, বাতি, চেরাগ, দেউটি, কূপি, লন্ঠন, শেজ, শ্যামা।
নক্ষত্র তারকা, তারা, অশ্বিনী, ভরণী, কৃত্তিকা, রোতিণী।
নবীন নতুন, নব, নব্য, আধুনিক, তরুণ, তাজা।
নম্র বিনীত, শান্থ, শিষ্ট, কোমল, নমনীয়, বিনয়ারিু^ত, হেঁট, অচঞ্চল, ধীর, বিবেচক, অনুগ্র।
নারী রমণী, রামা, স্ত্রীলোক, পতœী, বামা, অবলা, অঙ্গনা, মানবী, মানবিকা, আওরাত, জেনানা, বালা, মহিলা, কামিনী, ভামিনী, বনিতা, ললনা, অঙ্গনা, ভার্যা, কান্থা, প্রমদা
নদী তটিণী, তরঙ্গিণী, স্রোতস্বিনী, প্রবাহিণী, শৈবলিনী, কল্লোলিনী, গাঙ, ¯্রােতস্বতী, নির্ঝরণী, পয়স্বিনী, সরিৎ, ¯্রােতবহ, সমুদ্রকান্থা।
নর মানব, মানুষ, জন, লোক, পুরুষ।
নরম কোমল, মৃদু, শান্থ, অনুগ্র, শিথিল, ঢিলা, স্নিগ্ধ
নায়ক নেতা, পরিচালক, সর্দার, প্রধান, অগ্রণী।
পথিক গমনকারী, পথচারী, পান্থ, ভ্রমণকারী, মুসাফির।
পদ্ম কমল, কুদুম, কুমুদী, পঙ্কজ, উৎপল, অরবিন্দ, ইন্দীবর, শতদল, নলিন, রাজীব, পন্ডরীক, কুবলয়, কোকনদ, তামরস, পুষ্কর
পন্ডিত বিদ্ধান, শাস্ত্রজ্ঞ, জ্ঞানী, অভিজ্ঞ, মনীষী, সুধী, বিজ্ঞ
পর্বত পাহাড়, গিরি, গিরিরাজ, শৈল, অচল, অদ্রি, নগ, অচল, শৃঙ্গাধর, ক্ষিতিধর, মেদিনীধর, অবনীধর, বসুধাধর, ধরাধর, পৃথিবীধর, পৃথ্বীধর, ভূধর।
পিতা জনক, জন্মদাতা, বাবা, বাপ, আব্বা, আব্বু, বাজান
পুষ্প ফুল, কুসুম, প্রসূন, রঙ্গন
পৃথিবী ভুমন্ডল, ভূ, ভুবন, ভূতল, পৃথ্বী, অবনী, ক্ষিতি, ধরণী, ধরা, ধরিত্রী, ধরাতল, ধরাধম, বসুধা, বসমতি, বসুমাতা, বসুন্ধরা, মহী, মেদিনী, মর্ত্য, জড়ৎ. বিশ্ব, দুনিয়া, জাহান, সর্বংসহা
প্রদীপ দীপ, বাতি, আলো
প্রমোদ আনন্দ, আমোদ, বিলাস।
পাথর প্রস্তর, পাষাণ, অশ্ম, শিলা, উপল, মণি
পানি জল, নীর, বারি, সলিল, অম্বু, উদক, বারুণ, প্রণদ।
পত্নী বধূ, জায়া, ভার্যা, স্ত্রী, দার, বনিতা।
প্রতিজ্ঞ সঙ্কল্প. দৃঢ়পণ, শপথ, অঙ্গীকার
প্রভু মনিব, স্বামী, নৃপতি, ঈশ্বর, মহাপুরুষ, নেতা
ফুল কুসুম,পুষ্প, প্রসূন, রঙ্গন।
বন অটবী, অরণ্য, অরণ্যানী, বনানী, কানন, গহন, বিপিন, জঙ্গল, উপবন, কুঞ্জ, কান্থর।
বন্ধু মিত্র, সখা, সুহৃদ. হিতৈষী, স্বজন, প্রিয়জন, বান্ধব।
বস্ত্র কাপড়,পরিধেয়, আচ্ছাদন, পোশাক, পরিচ্ছেদ।
বায়ু হাওয়া, বাতাস, পবন, সমীরণ, সমীর, বাত, অনিল, মরুৎ, মারুত, পন্ধবহ, প্রভঞ্জন।
বিজলী বিদ্যুৎ, তড়িৎ, সেওট্টদামিনী, বিজুরি, চপলা, চঞ্চলা, অশনি, প্রভা, ক্ষণপ্রভা, দামিনী।
বিবাহ পরিণয়, উদ্বাহ, পাণিগ্রহণ, বিয়ে, শাদী, পাণিপীড়ন
বৃক্ষ গাছ, তরু, পাদপ, বিটপী, উদ্ভিদ, দ্রুম, শাখী
বউ বধূ, পত্নী, স্ত্রী
বজ্র বাজ, অশনি, কুলিশ
বিদ্যুৎ বিজলী, তড়িৎ, বিজুরী, অশনি, ক্ষণপ্রভা, চঞ্চলা
ভালোবাসা প্রণয়, প্রেম, অনুরাগ, প্রীতি, সদ্ভাব, বন্ধুত্ব, স্নেহ, শ্রদ্ধা, ভক্তি, আসক্তি, আকর্ষণ, টান, পছন্দ
ভ্রমর ভোমরা, ভৃঙ্গ, অলি, মেওট্টমাছি, মধুপ, মধুকর, ষটপদ, দ্বিরেফ, শিলামুখ
ভূমিকা মুখবন্ধ, সূচনা, পূর্বাভাস, উপক্রমণিকা, মুখপত্র, আরম্ভ, গেওট্টরচন্দ্রিকা, প্রস্তবনা, ভণিতা
মন চিত্ত, অন্থর, অন্থঃকরণ, হৃদয়, হিয়া, পরান, দিল, চিত্তপট
ময়ূর শিখা, কলাপী, কেকা, বর্হী
মাতা মা, জননী, জন্মদাত্রী, গর্ভধারিণী, প্রসূতি
মৃত্যু মরণ, ইন্থেকাল, লোকান্থর, পরলোকগমন, তিরোধন, প্রাণত্যাগ, বিনাশ, দেহত্যাগ, চিরবিদায়, শেষ নিঃশ্বাস, জীবনাবসান
মেঘ ঘন, জলদ, জলধর, জীমূত, বারিদ, নীরদ, কাদম্বিনী, অভ্য, অম্বুদ, অম্বুবাহ, অম্বুবাহী, বারিবাহ, কাদম্বিনী, ইরন্মদ, নীরধর, পয়োদ, বলাহক।
ময়ুর কিরণ, জ্যোতিঃ, প্রভা, রশ্মি।
যুদ্ধ সংগ্রাম, সমর, আহব, রণ, লড়াই, দ্বন্দ্ব
রাজা শাসক, নৃপতি, নরপতি, ভূপতি, ভূপাল, প্রজাপাল, নরেন্দ্র, নৃপ, মহীপতি, ভূপ।
রাত্রি রাত, রজনী, যামিনী, নিশি, নিশা, নিশীথ, নিশীথিনী, বিভাবরী, শর্বরী, নিশুতি, তামসী, ত্রিযামা, ক্ষণদা।
শরীর  দেহ, গা, গাত্র, তনু, কায়া, অঙ্গ, কলেবর, বপু।
শত্রু অরি, বৈরি, রিপু, প্রতিপক্ষ, বিপক্ষ, দুশমন, বিদ্বেষী, বিরোধী।
শক্ত কঠিন, মজবুত, অনমনীয়, দৃঢ়, টেকশই।
শশাঙ্ক চন্দ্র, চাঁদ, চন্দ্রিমা, শশী, ইন্দু, নিশাচর, নিশাপতি, সুধাংশু, বিধু, তারাপতি।
শিশির নীহার, নিশাজল, হিম, তুষার, হিমানী।
সংবাদ সন্দেশ, বার্তা, খবর।
সমুদ্র সাগর, দরিয়া, প্রচেতা,পারাপার, সমুদ্দুর, সিন্ধু, বারিধি, অর্ণব, পারাবার, জলধি, জলাধিপ, রতœাকর, পাথর।
সর্প সাপ, ফণী, ফণাধর, অহি, পন্নগ, নাগ, ভুজগ, ভুজঙ্গ, ভুজঙ্গম, আশীবিষ, দ্বিজিহ্ব, উরগ, বিষধর।
সাদা শ্বেত, শুভ্র, ধবল।
সিংহ কেশরী, মৃগেন্দ, হরি, পশুরাজ, হর্ষক্ষ।
সুন্দর সুদৃশ্য, শোভন, সুশোভন, মনোহর, মনোরম, অভিরাম, চমৎকার, কমনীয়, রম্য, রমণীয়,নয়নাভিরাম, অপরুপ, অনুপম, দৃষ্টিনন্দন, সুশ্রী।
সুন্দরী অভিরাম, অপ্সরী, রূপবতী, সুশ্রী, রূপসী, বামা।
সূর্য রবি, ভানু, ভাস্কর, দিবাকর, দিনমণি, তপন, সবিতা, সূর, প্রভাকর, বিবস্বান, মিত্র, মিহির, অরুণ
স্বর্গ দেবলোক, সুরলোক, দেবলায়, বেহেশ্ত, জান্নাত, গোলোক।
স্বামী পতি, ভর্তা, প্রভু, মনিব, অধিপতি, মালিক, নাথ, কান্থ, দয়িত, খসাম, বল্লভ।
হাত হস্ত, কর, ভুজ, বাহু।
হরিণ মৃগ, সারঙ্গ, ঋষ্য, কুরঙ্গম, সুনয়ন ।
হাতি হস্তী, গজ, করী, বারণ, দন্থী, দ্বিরদ, নাগ।

Suggestion or Complain

সংবাদ শিরোনাম